【2022】মিলের অন্বয়ী পদ্ধতি আলোচনা করো। (সংখ্যা, আকার, দৃষ্টান্ত, দুটি সুবিধা ও দুটি অসুবিধা )

সূত্র:- মিল অন্বয়ী পদ্ধতির সূত্র টিকে নিম্নরূপে আলোচনা করেছেন।  আলোচ‍্য ঘটনার দুই বা ততোধিক দৃষ্টান্তের মধ্যে যদি একটি মাত্র ঘটনা সাধারণভাবে উপস্থিত থাকে এবং সেই সাধারণ ঘটনা সম্বন্ধে যদি দৃষ্টান্ত গুলির মিল থাকে, তাহলে সেই সাধারণ ঘটনাটি হবে আলোচ‍্য ঘটনার কারণ বা কার্য বা কারণের অপরিহার্য অংশ ।
                   →সোজা ভাষায় বলা যায় যদি দুটি ঘটনাকে বিভিন্ন দৃষ্টান্তে একই সঙ্গে বারবার উপস্থিত হতে দেখা যায়, তাহলে উপস্থিতির এই মিল বা অন্বয় দেখে অনুমান করা হয় যে, ওই দুটি ঘটনার মধ্যে কার্য কারণ সমন্ধ আছে। এই জন্য এই পদ্ধতিকে অন্বয় পদ্ধতি বলা হয়।

ভিত্তি:- অপসারণের প্রথম নিতিটি হলো অন্বয়ী পদ্ধতির নীতি। অপসারণের প্রথম নীতি অনুযায়ী অগ্রবর্তী ঘটনার যে অংশ বাদ দিলে কার্যের বিলুপ্তি ঘটেনা সেই অংশটি কখনোই কারণ বা কারণের অংশ হতে পারবে না ।


অন্বয়ী পদ্ধতির সূত্রটি বিশ্লেষণ ও ব্যাখ্যা - অন্যায় পদ্ধতি প্রয়োগের জন্য দুই বা ততোধিক দৃষ্টান্তের প্রয়োজন হয় ।এবং দৃষ্টান্তগুলো পর্যবেক্ষণ এর সাহায্যে সংগ্রহিত করা হয় । প্রতিটি দৃষ্টান্তেই অগ্রগতি এবং অনুবর্তী ঘটনায় একটি মাত্র বিষয়ে উপস্থিতির মিল থাকবে।  আর ওই একটিমাত্র বিষয়ে উপস্থিতি ছাড়া অন্য সব বিষয়ে দুটি ঘটনার মধ্যে অমিল থাকবে। এই উপস্থিতির মিল লক্ষ করে সিদ্ধান্ত করা হবে যে বিষয় দুটির মধ্যে কার্য কারণ সমন্ধ আছে ।


সাংকেতিক উদহারণ:- 
কারণ                                                    কার্য
অগ্রবর্তী ঘটনা                                       অনুবর্তী ঘটনা
ABC                                                     abc
ADE                                                     ade
AFG                                                     afg


. ' . (A) হলো (a) এর কারণ বা a হলো A এর কার্য।

সাংকেতিক উদাহরন ব্যাখ্যা:-  ধরা যাক (a) হল একটি কার্য তার কারণ নির্ণয় করতে হবে। প্রথমে তিনটি দৃষ্টান্ত সংগ্রহ করা হলো যেখানে (a) নামক কার্যটি ঘটেছে। এখন (a ) এর কারণ তার অগ্রবর্তী ঘটনার মধ্যে থাকবে। তাই পর্যবেক্ষণ এর সাহায্যে তিনটি অগ্রবর্তী ঘটনা ABC,ADE,AFG সংগ্রহ করা হলো যাদেরকে (a) এনাম কার্যটি অনুসরণ করেছে। এবারও অগ্রবর্তী ঘটনাগুলো পরীক্ষা করে দেখা গেল যে, একটিমাত্র ঘটনা অর্থাৎ (A) সকল দৃষ্টান্তেই সমভাবে উপস্থিত এবং BCDEF প্রভৃতি ঘটনা গুলি কোনো কোনো দৃষ্টান্তে উপস্থিত আছে আবার কোনো কোনো দৃষ্টান্তে উপস্থিত নেই। যেহেতু কারণ হবে কার্যের অপরিবর্তনীয় অগ্রবর্তী ঘটনা। সেহেতু BCDEF প্রভৃতি (a) এর কারণ হতে পারে না।

বাস্তব উদহারণ:- 
কার্য                                                    কারণ
অগ্রবর্তী ঘটনা                                       অনুবর্তী ঘটনা
চিংড়ি তরকারি, ভাত, ডাল, মাছ            পেট খারাপ হওয়া
চিংড়ি তরকারি, রুটি, সবজি,মাছ          পেট খারাপ হওয়া
চিংড়ি তরকারি, ভাত, ডিম, চাটনি         পেট খারাপ হওয়া 
চিংড়ি তরকারি, ডাল, মাংস, রুটি          পেট খারাপ হওয়া 

. ' . পেট খারাপ হওয়ার কারণ হলো চিংড়ির তরকারি খাওয়া ।
          →কেননা পেট খারাপ হওয়া কার্যটির অগ্রবর্তী ঘটনায় কেবল চিংড়ি তরকারি খাওয়া ঘটনাটি সকল দৃষ্টান্ত উপস্থিত আছে। কিন্তু অন্যান্য অনুসঙ্গিক ঘটনা গুলি সব দৃষ্টান্তে উপস্থিত নেই। এই ভিতিত্তে অন্বয়ী পদ্ধতি  প্রয়োগ করে সিদ্ধান্ত করা হয়েছে চিংড়ির তরকারি খাওয়া পেট খারাপ হওয়ার কারণ।

. ' . পেট খারাপ হওয়ার কারণ চিংড়ির তরকারি খাওয়া।

বাস্তব উদহারণ:- 
কারণ                                                    কার্য
অগ্রবর্তী ঘটনা                                       অনুবর্তী ঘটনা
বায়ু পরিবর্তন+কাশ্মীর            সুস্বাস্থ্য+ত্বক খসখসে হওয়া
বায়ু পরিবর্তন+পুরী                 সুস্বাস্থ্য+রঙ কালো হওয়া
বায়ু পরিবর্তন+হরিদ্বার            সুস্বাস্থ্য+খিদে বৃদ্ধিপাওয়া

. ' . বায়ু পরিবর্তনের ফল বা কার্য হলো সাস্থের উন্নতি।
                কেননা, বায়ু পরিবর্তনের অনুগামী দৃষ্টান্ত গুলিতে ত্বক খসখসে হওয়ার, রং কালো হওয়া, খিদে বৃদ্ধি পাওয়া। প্রভৃতি ঘটনা গুলির পরিবর্তন হয়েছে। কিন্তু বায়ু পরিবর্তনের নিয়ত অনুগামী ঘটনা হিসেবে সু-সাস্থ সবসময় উপস্থিত আছে।
. ' . বায়ু পরিবর্তনের কার্য সমান সু-সাস্থ ।

সুবিধা:- (১)অন্বয়ী  পদ্ধতি প্রয়োগ ক্ষেত্র অন্যান্য পদ্ধতি প্রয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাপক। কারণ এই পদ্ধতিকে পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষণ উপায় ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যায়।
(২) অন্বয়ী  পদ্ধতি মূলত পর্যবেক্ষনের পদ্ধতি। পর্যবেক্ষণের ক্ষেত্রে আমরা কারণ থেকে কার্য এবং কার্য থেকে কারণে উপনীত হতে পারে।

 অসুবিধা:-(১)অন্বয়ী পদ্ধতি পর্যবেক্ষণ দোষের সম্ভাবনা সব সময় থেকেই যায়। অনেক সময় পর্যবেক্ষণ লব্ধ দৃষ্টান্ত সংগ্রহ করে যে সিদ্ধান্ত করা হয় তার মধ্যে প্রকৃতি কারণ গুলো থাকে না।
(২)বহু কারণ সম্ভবনা অন্বয়ী পদ্ধতিকে দোষ যুক্ত করে ।এই দোষকে অন্বয়ী পদ্ধতির প্রকৃত গত দোষ বলা হয়। কারণে এই প্রকার দোষ অন্বয়ী পদ্ধতির মধ্যে গৃহীত ।